Bangladesh Army Job Circular 2022 – সেনাবাহিনী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

সিভিল, ইঞ্জিনিয়ার্স, জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার/ওয়ারেন্ট অফিসার, সিগন্যালস, ইএমই, জেএসি, আরভিএন্ডএফসি কোরে যোগ দিতে বিএমএ স্পেশাল, ডিএসসি কোর্স, সৈনিক ও অসামরিক পদে বাংলাদেশের সকল নাগরিক আবেদন করতে পারবেন। সেনাবাহিনীতে আবেদন করার নিয়ম ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী আবেদন ফরম নিচে বিস্তারিত দেয়া হল।




সেনাবাহিনী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২




চাকরিসরকারি
প্রতিষ্ঠানবাংলাদেশ সেনাবাহিনী
ক্যাটাগরি Defence
পদসৈনিক+অসামরিক
শিক্ষা যোগ্যতা৫ম/৮ম/এসএসসি/এইচএসসি/স্নাতক
পদ সংখ্যাঅসংখ্য জন
আবেদন অনলাইন প্রক্রিয়াhttps://joinbangladesharmy.army.mil.bd/
বেতন
 আবেদন শেষ২৮ Jun 2022





সেনাবাহিনী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

২০২২ সালে নির্ধারিত সেনানিবাসে সৈনিক পদে পুরুষ ও মহিলা প্রার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। সেনাবাহিনীতে যোগদানে আগ্রহী (সকল জেলার পুরুষ ও মহিলা প্রার্থীদের আবেদনের জন্য বিস্তারিত তথ্যাবলী নিচে দেয়া হল। সেনাবাহিনীতে অর্থের বিনিময়ে তর্ভির কোন সুযোগ নেই। লেনদেনের মাধ্যমে সেনাবাহিনীতে ভর্তি হলে চাকুরীর যে কোন পর্যায়ে বহিষ্কার করা হবে।




অনলাইনে আবেদনের পদ্ধতি




২৪ জুলাই, ২০২১ তারিখ পর্যন্ত শুধুমাত্র অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদনকারী প্রার্থীগণকে (joinbangladesharmy.army.mil.bd) ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে হোম পেজের এর উপরে ডান কোনায় APPLY NOW তে ক্লিক করে ৮৭তম বিএমএ দীর্ঘমেয়াদী কোর্সে আবেদন করতে হবে।

আবেদনকারী প্রার্থীগণ টেলিটক, ট্রাস্ট ব্যাঙ্ক, টি-ক্যাশ, বিকাশ, রকেট ইত্যাদির মাধ্যমে ১,০০০ (এক হাজার) টাকা (অফেরৎযোগ্য) আবেদন ফি প্রদান করতে পারবেন। আবেদন প্রক্রিয়াতেই ওয়েব সাইটে বর্ণিত পদ্ধতি অনুসরণ করে আবেদন ফি প্রদান করা যায় এবং তাৎক্ষণিকভাবে প্রাথমিক সাক্ষাৎকারের কল-আপ লেটার পাওয়া যায়।

অনলাইনে আবেদন করতে যে কোন প্রকার অসুবিধা হলে ওয়েবসাইটে দেখানো কাস্টমার সাপোর্ট নম্বরে (+৮৮০১৭১৩১৬১৯৭৯) সরাসরি যোগাযোগ করুন।




সেনাবাহিনী নিয়োগ এর জন্য যে যে যোগ্যতা প্রয়োজন ঃ


সেনা/নৌ/বিমান বাহিনী অথবা যেকোন সরকারী চাকরি হতে বরখান্ত/অপসারিত/স্বেচ্ছায় পদত্যাগ গ্রহণ করলে। দ্বৈত নাগরিকত্ব অথবা বাংলাদেশ ব্যতীত অন্য কোন দেশে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি থাকলে।

আইএসএসবি পরীক্ষায় দু’বার স্ক্রীন্ড আউট অথবা দু’বার প্রত্যাখ্যাত (একবার স্ক্রীন্ড আউট এবং একবার প্রত্যাখ্যাত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন)।

যে কোন ফৌজদারী অপরাধের জন্য আদালত কর্তৃক দন্ড প্রাপ্ত। সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর আপিল মেডিক্যাল বোর্ড কর্তৃক অযোগ্য বিবেচিত হলে।

প্রতিটি চোখের দৃষ্টিক্ষীনতা ও দূরদৃষ্টি ২.৫ ডাইঅপ্টার এর বেশি এবং বিষমদৃষ্টি ১.০ ডাইঅপ্টার এর বেশি হল সেক্ষেত্রে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

প্রার্থীর বয়স ১৮ বছর হওয়ার পূর্বে ল্যাসিক করা হলে গ্রহণযোগ্য নয়। ল্যাসিক অপারেশনের তারিখ হতে চোখ পরীক্ষার তারিখের মধ্যে নূন্যতম ৩ (তিন) মাস অতিবাহিত হতে হবে।

সেনাবাহিনী নিয়োগ এর জন্য যে যে যোগ্যতা প্রয়োজন নির্বাচন পদ্ধতিঃ


প্রাথমিক স্বাস্থ্য ও মৌখিক পরীক্ষা প্রাথমিক নির্বাচনী (স্বাস্থ্য ও মৌখিক) পরীক্ষা বিভিন্ন সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হবে। কোন প্রার্থী পরীক্ষার দিন উপস্থিত হতে অপারগ হলে বর্ণিত সময়ের মধ্যে যে কোন দিন উপস্থিত হয়ে উক্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। তবে পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তনের বিষয়টি পূর্বেই সরাসরি নিজ নিজ পরীক্ষা কেন্দ্রে জানাতে হবে।

প্রাথমিক নির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরকে বাংলা, ইংরেজী, সাধারণ গণিত এবং সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে সাক্ষাৎকার পত্রে উল্লেখিত স্থানে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। লিখিত পরীক্ষার ফলাফল ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

লিখিত পরীক্ষায় যোগ্য প্রার্থীদের ঢাকা সেনানিবাসে অবস্থিত আইএসএসবি এর নিকট পরীক্ষা/সাক্ষাৎকারের জন্য নির্ধারিত তারিখে উপস্থিত হতে হবে। পরীক্ষা/সাক্ষাৎকারের তারিখ আইএসএসবি’র ওয়েবসাইট তে প্রকাশ করা হবে। এই পরীক্ষা চার দিনে সম্পন্ন হবে এবং যাবতীয় ব্যয় সরকার কর্তৃক বহন করা হবে।

আইএসএসবি পরীক্ষা চলাকালীন প্রার্থীদেরকে চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। চূড়ান্ত নির্বাচন এবং যোগদান নির্দেশিকা প্রদান। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় চূড়ান্ত যোগ্যতা অর্জন সাপেক্ষে প্রার্থীদেরকে সেনাসদর, এজি’র শাখা (পিএ পরিদপ্তর) কর্তৃক চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত ঘোষণা এবং পরবর্তীতে যোগদান নির্দেশিকা প্রদান করা হবে।

ক্যাডেটগণ একাডেমিতে ৩ (তিন) বছরের প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন। ৪র্থ বছর বিএমএ/এমআইএসটি’তে অবস্থান করে অফিসার হিসেবে স্নাতক (সম্মান)/ইঞ্জিনিয়ার ডিগ্রী সমূহ সম্পন্ন করবেন।

সরকার কর্তৃক নির্ধারিত অন্যান্য সুবিধাদিসহ সশস্ত্র বাহিনীর বেতনক্রম অনুযারী অফিসার ক্যাডেটগণ বেতন ও ভাতা প্রাপ্ত হবেন। পরবে কমিশন প্রাপ্তির পর লেফটেন্যান্ট-এর বেতন ভাতা ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক সুবিধা প্রাপ্ত হবেন।

বিদেশে প্রশিক্ষণ। প্রশিক্ষণের বিভিন্ন পর্যায়ে এবং কমিশন প্রান্তির পর মেধাবী ক্যাডেট এবং অফিসারগণের প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশে গমনের সুযোগ।

ব্যক্তিগত যোগ্যতার ভিত্তিতে স্নাতকোত্তর, এমফিল ও পিএইচডি ডিগ্রী অর্জনের সুযোগ। বাসস্থান নিরাপদ ও মনোরম পরিবেশে মানসম্পন্ন সুসজ্জিত বাসস্থান প্রাপ্তির সুযোগ।

চিকিৎসা সামরিক হাসপাতালসমূহে উন্নতমানের চিকিৎসা সুবিধা ও দূরারোগ্য ব্যাধিতে উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হলে বিধি মোতাবেক নগদ অর্থ প্রদানসহ বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা।

সামরিক মৌলিক প্রশিক্ষণের প্রয়োজনে প্রার্থীদেরকে বিএমএতে যোগদানের পূর্বে সাঁতার শেখার জন্য উপদেশ দেয়া হলো। ক্যাডেট কলেজ/বিএনসিসি/এমসিএসকে-এর ক্যাডেটদের স্ব-স্ব কলেজ/রেজিমেন্টের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তির যে কোন অংশ পরিবর্তনের ক্ষমতা সেনাসদর সংরক্ষণ করে। চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের যোগদান পত্র প্রদান/বাতিলের ক্ষমতা সেনাসদর সংরক্ষণ করে।




Leave a Reply

Your email address will not be published.